ঢাকা শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী মঙ্গলবার

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী মঙ্গলবার

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৬ জুলাই ২০২১ | ০৫:৫৭

উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল ও বাম প্রগতিশীল আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী মঙ্গলবার। ১৯৫৭ সালের ২৭ জুলাই ঢাকার রূপমহল সিনেমা হলে দু'দিনব্যাপী গণতান্ত্রিক কর্মী সম্মেলনের মাধ্যমে দলটির আত্মপ্রকাশ ঘটে। 

মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, খান আবদুল গাফফার খান, মিয়া ইখতিয়ার উদ্দিন, অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ, দেওয়ান মাহবুব আলী, আতাউর রহমান, মাহমুদ আলী কাসুরি এবং হাছান নাছেরসহ পাকিস্তানের উভয় অংশের নেতাদের সমন্বয়ে দলটি গঠিত হয়। পরে মস্কো-পিকিং মতাদর্শগত বিরোধের কারণে ১৯৬৭ সালের ৩ নভেম্বর মতিঝিলের হোটেল ইডেনে ন্যাপের রিকিউজিশন সম্মেলনে মস্কোপন্থিরা ন্যাপ গঠনের অন্যতম রূপকার অধ্যাপক মোজাফফর আহমদকে সভাপতি করে দল পুনর্গঠন করেন। এরপরও বিভিন্ন সময় মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর নেতৃত্বাধীন অংশসহ ন্যাপ বহু ধারায় বিভক্ত হয়েছে।

দেশের রাজনীতির ইতিহাসের সব অর্জনে ন্যাপের ভূমিকা অবিস্মরণীয়। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনকারী দলটি স্বাধীনতার পরও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা এবং সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম অব্যাহত রাখে। আশির দশকজুড়ে স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে এই দলের লড়াই ছিল আপোষহীন। বর্তমানে বহুধাবিভক্ত হলেও প্রয়াত জননেতা অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ গঠিত দলের মূল ধারাটি সাম্রাজ্যবাদবিরোধী, অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল আন্দোলনে অবদান রেখে চলেছে।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে দলের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ন্যাপ (মোজাফফর) সীমিত পরিসরে কর্মসূচি পালন করবে। কর্মসূচিতে রয়েছে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার এলাহাবাদ গ্রামে দলের প্রয়াত সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বিকেল চারটায় দলের কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা। ন্যাপের অন্য অংশগুলোও অনুরূপ কর্মসূচির আয়োজন করেছে।

আরও পড়ুন

×