চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা-সিলেটের রেল যোগাযোগ বন্ধ

প্রকাশ: ১২ নভেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

সোমবার রাত পৌনে ৩টার দিকে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ছবি: সমকাল

সোমবার রাত পৌনে ৩টার দিকে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ছবি: সমকাল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলস্টেশনে তূর্ণা নিশীথা ও উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। সংঘর্ষের পর থেকে লাইন সংস্কারের কাজ করছে রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগ। মঙ্গলবার সকাল ১১টার মধ্যে লাইন সংস্কার শেষে চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা ও সিলেটের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে। 

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, চট্টগ্রাম থেকে সকাল ৭টায় সুবর্ণ এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকার উদ্দেশে ঠিক সময়ে ছেড়ে গেছে। ট্রেনটি দুর্ঘটনাস্থলে আসার আগেই লাইন সংস্কারের কাজ শেষ হবে। আশা করছি, সকাল ১১টার মধ্যে এই রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে।

এদিকে চট্টগ্রাম রেলওয়ে সূত্র জানায়, পাহাড়ীকা এক্সপ্রেস ট্রেন সকাল ৯টায় সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু লাইন সংস্কার না হওয়ায় ট্রেনটি দেরিতে ছেড়ে যাবে। এছাড়া মহানগর গোধূলী বিকেল তিনটায় ঢাকার উদ্দেশ্যে, মহানগর এক্সপ্রেস দুপুর সাড়ে ১২টায়, মেঘনা এক্সপ্রেস চাঁদপুর উদ্দেশ্যে বিকেল সোয়া ৫টায়, সোনার বাংলা বিকেল ৫টায় ও তূর্ণা এক্সপ্রেস রাত ১১টায় ঢাকার উদ্দেশে ঠিক সময়ে ছেড়ে যাবে।

সোমবার রাত পৌনে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা আর সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষে কয়েকটি বগি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ১৬ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে।