তাহিরপুরে টাঙ্গুয়ার হাওরে ঘুরতে এসে পানিতে ডুবে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে টাঙ্গুয়া হাওর সংলগ্ন পাটলাই নদী থেকে কুনাজাল দিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত পর্যটকের নাম জাহেদ চৌধুরী (২৫)। তিনি ঢাকা তিতুমীর কলেজের বিবিএ ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী এবং ফেনী জেলার ফেনী থানার দিলরাজপুর গ্রামের মৃত ফজলুল হক চৌধুরীর ছেলে।

পুলিশ ও নিহত পর্যটকের সঙ্গীয়দের সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে ১১ বন্ধু মিলে পর্যটনখ্যাত টাঙ্গুয়া হাওর দেখতে আসেন তাহিরপুরে। দুপুরে তাহিরপুর থানা ঘাট থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত পর্যটকবাহী ট্রলার ভাড়া করে টাঙ্গুয়া হাওর দেখে সন্ধ্যায় রাত্রি যাপন করে শহীদ সিরাজ লেকের পাড় ট্যাকেরঘাট কমিনিউটি ক্লিনিকের পাশে। রাত ১২ টার দিকে তারা রাতের খাবার খেয়ে সবাই নৌকার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে ঘুম থেকে উঠে তারা ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে নৌকা ছেড়ে তাহিরপুর থানার ঘাটে চলে আসে। থানা ঘাট থেকে যখন গাড়িতে উঠবে তখন তারা বন্ধু জাহেদ চৌধুরী কে দেখতে না পেয়ে আবার ট্যাকেরঘাট কমিনিউটি ক্লিনিকের ট্রলার ঘাটে এসে তাকে খুঁজাখুঁজি করতে থাকে। এক পর্যায়ে থাকে না পেয়ে থানায়  বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মাছ ধরার কুনাজাল জাল দিয়ে ট্যাকেরঘাট কমিনিউটি ক্লিনিকের ঘাটের তীর থেকে প্রায় ১০০ গজ দুরে ডুবন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে।

তাহিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক পাপেল রায় জানান, পাটলাই নদী থেকে ডুবন্ত অবস্থায় জাল দিয়ে এক পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তাহিরপুর থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চত করে বলেন, টাঙ্গুয়ার হাওরে ঘুরতে আসা ওই ছাত্র নদীতে ডুবে মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে।