ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

৭৪ বোতল ফেনসিডিলসহ জনতার হাতে আটক পুলিশ সদস্য

৭৪ বোতল ফেনসিডিলসহ জনতার হাতে আটক পুলিশ সদস্য

ফেনসিডিলসহ আটক পুলিশ সদস্য। ছবি-সমকাল

রামগড় (খাগড়াছড়ি) সংবাদদাতা

প্রকাশ: ১৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১২:৪১ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২৩ | ১২:৪১

৭৪ বোতল ফেনসিডিলসহ জনতার হাতে আটক হয়েছেন খাগড়াছড়ির রামগড় থানার পুলিশ সদস্য সাজ্জাদ হোসেন।

বুধবার সকালে রামগড়ের পার্শ্ববর্তী ভুজপুরের বাগানবাজারের চিকনছড়া এলাকায় ৭৪ বোতল ফেনসিডিল ও মোটরসাইকেলসহ তাকে আটক করে স্থানীয় জনতা। পরে তাকে প্রথমে ১ নম্বর বাগানবাজার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান এবং পরে ভুজপুর থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

জানা যায়, সাজ্জাদ নাটোর জেলার বড়ইগ্রাম থানার বনরূপা আবাসিক এলাকার মরহুম জহিরুল হকের ছেলে।

সপ্তাহ না ঘুরতেই খাগড়াছড়ির রামগড় থানার পরপর দুজন পুলিশ সদস্য ভারতীয় ফেনসিডিলসহ আটক হওয়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

গত ১৪ অক্টোবর বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ বোস্তামী থানা গেট এলাকায় একটি প্রাইভেটকার তল্লাশি চালিয়ে ৯৩ বোতল ফেনসিডিলসহ রামগড় থানার পুলিশ সদস্য আশরাফুল হাসান তানভীরসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে চট্টগ্রামের নগর গোয়েন্দা পুলিশ।

১ নম্বর বাগানবাজার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সাহাদাত হোসেন সাজু জানান, রামগড় থানার সাজ্জাদ নামের এক পুলিশ কনস্টেবলকে ৭৪ বোতল ফেনসিডিলসহ স্থানীয়রা আটক করে ইউনিয়ন পরিষদে হস্তান্তর করলে পুলিশকে খবর দেই।

ভুজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন ফারুকী বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে। আটক সাজ্জাদ নিজেকে রামগড় থানার কনস্টেবল পরিচয় দিয়েছেন। তার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে ডিউটির পর থেকে তিনি থানায় উপস্থিত ছিলেন না। মাদক নিয়ে আটকের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কিছু জানেন না বলেও জানান তিনি।

রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে এ ব্যাপারে জানানো হয়েছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

×