'করোনাকে নয় ভয়, আমরা করব জয়। মাস্ক পরুন, নিরাপদে থাকুন।' - মানুষকে সচেতন করে তোলার জন্য রাজপথে দাঁড়িয়ে প্রতিদিন ধার করা হ্যান্ডমাইকে এই আহ্বান জানিয়ে আসছিলেন সাঁওতালকন্যা সাবিত্রী হেমব্রম। বৃহস্পতিবার সমকালে প্রকাশিত 'সাঁওতালকন্যার অভয়' শীর্ষক সংবাদ পড়ার পর এ প্রচার অব্যাহত রাখতে তাকে একটি হ্যান্ডমাইক উপহার দিয়েছেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ব্যবসায়ী আজিজুল আলম বেন্টু।

সমকালের রাজশাহী ব্যুরো অফিসে এসে বৃহস্পতিবার দুপুরে সাবিত্রীর হাতে হ্যান্ডমাইকটি তুলে দেন আজিজুল আলম। মাইক পেয়ে উৎফুল্ল সাবিত্রী বলেন, খুবই ভালো লাগছে। ধার করে কাজ করা খুব কঠিন। এখন যখন ইচ্ছে তখনই কাজটি করতে পারব। সমকালকে ধন্যবাদ এ সংবাদ প্রকাশের জন্য। আজিজুল আলম বেন্টু ভাইকেও ধন্যবাদ এগিয়ে আসায়। এই মহামারীকালে যুব সমাজের উচিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

আজিজুল আলম বেন্টু বলেন, সাবিত্রী সাহস করে খুবই ভাল এই উদ্যোগ নিয়েছেন। সমকালে সংবাদটি পড়েই মনে হয়েছে, তার পাশে দাঁড়ানো উচিত। তাই তাকে হ্যান্ডমাইক উপহার দিয়েছি। কারণ প্রতিদিন তাকে অন্য কারও কাছ থেকে হ্যান্ডমাইক ধার করে এ কাজ করতে হতো। আমার পক্ষ থেকে মাস্কও সরবরাহ করা হবে। সবাই সাবিত্রীর মতো সচেতনতা সৃষ্টিতে এগিয়ে এলে দেশ থেকে করোনা নির্মূল অনেক সহজ হবে।

করোনাকালের শুরু থেকেই হ্যান্ডমাইক ধার করে প্রচার চালিয়ে আসছেন সাবিত্রী। নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে বিলি করছেন মাস্ক ও খাবার। সাবিত্রী রাজশাহী কলেজ থেকে অর্থনীতিতে মাস্টার্স শেষ করেছেন ২০১৮ সালে। তিনি নগরীর হড়গ্রাম পূর্বপাড়ার অবসরপ্রাপ্ত জেলা সমবায় কর্মকর্তা সূর্য হেমব্রমের কন্যা। তার মা জাতীয় আদিবাসী পরিষদের রাজশাহী মহানগর শাখার সভাপতি সুমিলা টুডু।