জঙ্গি অর্থায়নের দায়ে সাবেক সুন্দরীর সাজা

প্রকাশ: ২২ ডিসেম্বর ২০১৯     আপডেট: ২২ ডিসেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

আমানী নূর

সিরিয়ায় ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠীদের আর্থিক সাহায্য পাঠানোর দায়ে ব্রিটেনের এক সাবেক সুন্দরীকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

আমানী নূর নামের ওই নারীর এমন এক ব্যক্তির সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল যাকে বিয়ের পরেও তিনি দেখেননি। গ্রেফতার হওয়ার আগে স্বামীর সঙ্গে দেখা করার পরিকল্পনা ছিল তার। 

ব্রিটেনের আদালত ২১ বছর বয়সী এই নারীকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন করে তহবিল গঠন করার জন্য দোষী সাব্যস্ত করেছেন। খবর দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের

শুক্রবার নূরকে ১৮ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তাকে সন্ত্রাসবাদে উৎসাহিত করার জন্য ভিক্টোরিয়া ওয়েবস্টার নামে আরেক নারীকে ১৭ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

ম্যানচেস্টার পুলিশ জানিয়েছে, তারা দুজনই ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস এবং হায়াত তাহরির আল শামকে সমর্থন করেন। 

নূর ২০১৪ সালে একটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে এর ফাইনাল রাউন্ডের জন্য চূড়ান্ত হয়েছিলেন।

তিনি লিভারপুর ক্রাউন কোর্টকে জানান, ১৮ বছর বয়সে একজন প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলারের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই সম্পর্কে থাকাকালীন তার ধর্মের প্রতি অনুরাগ বাড়ে। 

এরপর থেকে নূর বিভিন্ন ‌'চরমপন্থী' গ্রুপের লোকজনের সঙ্গে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ শুরু করেন। আর ইন্টারনেটেই ওয়েবস্টারের সঙ্গে তার পরিচয় ঘটে।

নূর ২০১৮ সালের মে মাসে ছদ্মনাম ব্যবহার করে জঙ্গি গোষ্ঠীর জন্য আর্থিক সাহায্য পাঠিয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে নূর আদালতকে বলেছেন, তিনি যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার শিশু ও নারীদের খাবার কেনার জন্য এ আর্থিক সাহায্য পাঠিয়েছিলেন।