ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

বরগুনা

ধর্ষণে বাধা পেয়ে দুই শিশুকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ১

ধর্ষণে বাধা পেয়ে দুই  শিশুকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ১

আটক ইলিয়াস পাহলান

বরগুনা প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৪ আগস্ট ২০২৩ | ১৮:০০ | আপডেট: ০৪ আগস্ট ২০২৩ | ২০:১১

বরগুনা সদর উপজেলায় শ্যালিকাকে ধর্ষণে বাধা পেয়ে দুই শিশুকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতের এ ঘটনায় ইলিয়াস পাহলান নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার সময় শ্যালিকাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে সে। নিহতদের মধ্যে তিন বছরের শিশুটি আহত নারীর মেয়ে। ১৩ বছরের শিশু তাঁর প্রতিবেশীর ছেলে। ইলিয়াস একই উপজেলার বাসিন্দা এবং আহত নারীর বড় বোনের স্বামী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই নারীকে দীর্ঘদিন উত্ত্যক্ত করে আসছিল তাঁর দুলাভাই ইলিয়াস। মা বাড়িতে না থাকায় বৃহস্পতিবার রাতের খাবার খেয়ে তিন বছরের শিশুকন্যা ও প্রতিবেশী এক শিশুকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। এই সুযোগে গভীর রাতে ঘরে ঢুকে ইলিয়াস তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এতে বাধা দেন তিনি। এক পর্যায়ে ঘরে থাকা দা উঁচিয়ে ইলিয়াসকে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। এ সময় ইলিয়াস হাত থেকে দা কেড়ে নিয়ে তাঁকে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় পাশে ঘুমানো প্রতিবেশী শিশু জেগে উঠে ইলিয়াসকে বাধা দেয়। তাকে কুপিয়ে ঘটনাস্থলেই হত্যা করে ইলিয়াস। পরে ওই নারীর শিশুকন্যাকে কুপিয়ে সে বাড়ি ফিরে যায়।

সকালে প্রতিবেশীরা এক শিশুর মরদেহ এবং ওই নারী ও তাঁর মেয়েকে জখম অবস্থায় দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে এবং মা ও শিশুকে বরগুনা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়।

এদিকে রাতে এ ঘটনার পর নিজ বাড়িতে ফিরে ঘুমিয়ে পড়ে ইলিয়াস। সকালে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে অন্যদের সঙ্গে সেও ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যার কথা স্বীকার করে ইলিয়াস। তার ফাঁসি দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

নিহত প্রতিবেশী শিশুর খালা বলেন, ‘পড়াশোনার জন্য একমাত্র ছেলেকে আমাদের কাছে রেখে গেছে আমার বোন ও দুলাভাই। সে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত; রোল নম্বর ১। এখন আমার বোনকে কী জবাব দেব?’

বরগুনা থানার ওসি এ কে এম মিজানুর রহমান বলেন, দুই শিশুর মরদেহ ময়নাতদন্তের পর স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

আরও পড়ুন

×