তাড়াশে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মানববন্ধন

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৯      

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

ডা. ফরিদা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে হাসপাতালের কর্মরত চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মানববন্ধন

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে হাসপাতালের কর্মরত চিকিৎসক,  কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে হাসপাতাল চত্বরে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

এসময় বক্তারা বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদা ইয়াসমিন বিভিন্ন সময়ে অকারণে সহকর্মী চিকিৎসকসহ অন্য কর্মচারীদের অশ্লীল ভাষায় গালাগাল, চায়ের কাপ গায়ে ছুড়ে মারা ও সহকর্মীদের গায়ে হাত তোলেন। আর এর প্রতিবাদ করায় প্রতিবাদকারী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা করার হুমকি দেন।

তারা বলেন, ওই কর্মকর্তা সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন অফিসে আসেন। তার সরকারি দায়িত্ব পালন না করার কারণে হাসপাতালে সার্বিক চিকিৎসা সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। 

এছাড়া স্থানীয়দের অভিযোগ, ডা. ফরিদা ইয়াসমিন তার নামে বরাদ্দ আবাসিক ভবনে না থেকে তিনি ঢাকায় প্রাইভেট ক্লিনিকে প্র্যাকটিস করেন। 

এ সময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, তাড়াশ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. শিমুল তালুকদার, মেডিকেল অফিসার ডা. মিজানুর রহমান, সিনিয়র নার্স তাহিরা হক, অফিস সহকারী আব্দুল মান্নান, স্টোর কিপার শাহাদত হোসেন, স্যানেটারি ইন্সপেক্টর রাশিদুল ইসলাম, চালক নিরব হোসেন, নৈশপ্রহরী গোরা চাঁদ প্রমুখ। 

এ প্রসঙ্গে ডা. ফরিদা ইয়াসমিন মুঠোফোনে জানান, আমি ঢাকায় প্রশিক্ষণে আছি। আমার বিরুদ্ধে মানববন্ধন যারা করেছেন তারা  আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন। মোবাইলে সে ভয়েস রেকর্ড আমার কাছে রয়েছে।

এদিকে মানববন্ধন প্রসঙ্গে সিরাজগঞ্জ ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি জানি না। জেনে ব্যবস্থা নেব।