একটি রেডিও শোতে ঢাকাই ছবির জনপ্রিয়  অভিনেতা মিশা সওদাগরকে সুবিধাবাদী বলে আখ্যা দিয়েছেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী। এমন মন্তব্যে বাপ্পীকে বেয়াদব বলেছেন মিশা সওদাগর।

সাংবাদিক তানভীর তারেকের রেডিওর ওই শো তে  মিশাকে নিয়ে বাপ্পী বলেন, ‘যেখানে ট্রেন্ড হয়, সে ওখানে লাফায়। লাইক আমাদের মিশা ভাই। “পরাণ” ট্রেন্ডে যাচ্ছে মিশা ভাই “পরাণ”–এর ট্রেন্ডে দৌড়াচ্ছেন। “হাওয়া” ট্রেন্ডে “হাওয়া”–তে দৌড়াচ্ছেন। সুবিধাবাদী ট্রেন্ড আরকি।’

বাপ্পির এমন মন্তব্য নিয়ে গত দুদিন ধরে গণমাধ্যমে খবরও প্রকাশ হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে সমকালের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয় মিশা সওদাগরের সঙ্গে। তিনি বলেন,  ‘বাপ্পি যে ট্রেন্ডের কথা বলেছে, ট্রেন্ডের  মানে কী? যাই হোক ও আমার ছেলের মতো। আমি  সঠিক সময়ে বিয়ে করলে বাপ্পীর মতো ছেলে থাকত আমার। ও তো বেয়াদব। ছেলে বেয়াদব হতে পারে। তাই বলে তো বাবা বেয়াদব হতে পারে না। আমি দেশ ও দেশের সংস্কৃতিকে ভালোবাসি, এ জন্য যদি সুবিধাবাদী বলা হয়, হোক।’

ট্রেন্ডের সঙ্গে দৌড়ানের ব্যাখ্যা করে মিশা আরও বলেন, কোনো ছবি ভালো চললে সে ছবির পক্ষে কথা আমি তো বলবোই। এখন রাজ ভালো করছে, সিয়াম ভালো করছে ওদের নিয়ে প্রশংসা করবো না? পরাণ ছবির প্রযোজক আামাকে তাদের ছবি দেখার দাওয়াত দিয়েছে। আমি পরাণ দেখতে গিয়েছি। ছবি ভালো হয়েছে প্রশংসা তো করবই। অন্যদিকে হাওয়া মুক্তির আগেই গানটি যে পরিমাণ হিট হয়েছে, আমি মনে করি, ১৫–২০ বছর পর একটি গান দিয়েই দর্শক ফেরাতে পেরেছে “হাওয়া”। আমি এখনো হাওয়া দেখিনি, দেখব। তবে শুনেছি, ভালো হয়েছে। এ কারণেই ছবি দুটি নিয়ে আমার অনুভূতিতে যা এসেছে, তাই বলেছি, বলছি। এ জন্য কে কী বলল, তা দেখার নাই।’

বাপ্পিকে পরামর্শ দিয়ে এ খলনায়ক বলেন, 'কারও সাফল্যে ইর্ষান্বিত না হয়ে বাপ্পির উচিত এখন অভিনয় শেখা। ওর অভিনয়ের যথেষ্ঠ দূর্বলতা আছে। এখনও ওর সময় আছে, বাপ্পি ফুরিয়ে যায়নি। কমার্শিয়াল হিরো হিসেবে ওর একটা ভ্যালো আছে। ক্যারিয়ারে বলার মতো কোনো কাজ নেই ওর। বলার মতো কিছু কাজ করা। পাশাপাশি আচার-আচারণও শেখা।'