বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে চাঁদের বুকে পতাকা স্থাপন করেছে চীন। চীনের জাতীয় মহাকাশ সংস্থার প্রকাশিত ছবিগুলোতে দেখা যায়, পাঁচ তারকাযুক্ত লাল পতাকাটি বায়ুহীন চাঁদের পৃষ্ঠের ওপরে স্থাপন করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র ৫০ বছরের বেশি সময় আগে চাঁদে তাদের পতাকা স্থাপনের পর চীন এই সাফল্য পেল। খবর বিবিসির।

বৃহস্পতিবার পাথরের নমুনা নিয়ে চন্দ্রপৃষ্ঠ ছাড়ার আগে মহাকাশযান চ্যাঙ্গি-৫ পতাকা স্থাপনের ছবিগুলো ক্যামেরাবন্দি করে। চীনের আগের দুটি চন্দ্র মিশনে পতাকা নিয়ে গেলেও তা সেখানে স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ১৯৬৯ সালে যুক্তরাষ্ট্র অ্যাপোলো-১১ মিশন নিয়ে চাঁদে প্রথম পতাকা স্থাপন করে। পরে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন মিশনে দেশটি পাঁচটি পতাকা চন্দ্রপৃষ্ঠে স্থাপন করে।

২০১২ সালের স্যাটেলাইট ছবির বরাত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানায়, তাদের পাঁচটি পতাকা তখনও চাঁদে দাঁড়িয়ে ছিল। তবে বিশেষজ্ঞদের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, দাঁড়িয়ে থাকলেও সূর্যের তাপে ওই পতাকাগুলোর রং জ্বলে যেতে পারে।

চীনের রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস বলেছে, চীনের এই পতাকা যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপোলো মিশনের 'উত্তেজনা ও অনুপ্রেরণার' কথাই স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে। চীনের পতাকাটি দুই মিটার চওড়া ও ৯০ সেন্টিমিটার লম্বা। এর ওজন প্রায় এক কেজি। শীত থেকে এটিকে রক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে। গত সাত বছরে এ নিয়ে চীন তৃতীয়বারের মতো চাঁদে সফল অভিযান পরিচালনা করল। সর্বশেষ গত ১ ডিসেম্বর চীনের পাঠানো মনুষ্যবিহীন মহাকাশযান সফলভাবে চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করে।