ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

নান্নুকে দুর্ভাগা ভাবছেন সুজন, জানাচ্ছেন স্যালুট

নান্নুকে দুর্ভাগা ভাবছেন সুজন, জানাচ্ছেন স্যালুট

সুজন-নান্নু

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৬:০১

নানা সময়ে জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেল নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা ছিল নিয়মিত ঘটনা। শেষ অবধি সোমবারের বোর্ড সভায় সরিয়ে দেওয়া হয়েছে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনকে। এখন প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে নির্বাচক প্যানেলে জায়গা পেয়েছেন হান্নান সরকার।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামে নির্বাচক প্যানেল নিয়ে কথা বলেছেন ক্রিকেট অপারেশন্সের ভাইস চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন। এ সময় তিনি নতুন নির্বাচক প্যানেলের ব্যাপারে না জানায় বিস্ময় প্রকাশ করেন।

নিজ মেয়াদের শেষ দিকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন নান্নু। শোনা যেত, দল নির্বাচনের সিদ্ধান্ত বোর্ড সভাপতি ও অন্য পরিচালকেরাই বেশি নিতেন। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও বেশ সমালোচনা হতো। আজ নান্নুর সমালোচনাকারীদেরও কড়া কথা শুনিয়েছেন সুজন।

দুর্দান্ত ঢাকার কোচ হয়ে বিপিএলে ব্যস্ত সময় কাটছে সুজনের, এ মুহূর্তে দল নিয়ে অবস্থান করছেন চট্টগ্রামে। সেখানেই গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে এক সাংবাদিক সুজনের কাছে জানতে চান, নান্নু ভাইকে সরানো ঠিক হলো কিনা? এমন প্রশ্নে বেশ বিরক্তই হলেন প্রভাবশালী এই বোর্ড কর্তা। তিনি বলেন, ‘আপনাদের এই প্রশ্ন করা কি ঠিক? নান্নু ভাইকে আপনারা এমনভাবে… নান্নু ভাই খুবই দুর্ভাগা। একজন সাবেক অধিনায়ককে যেভাবে মানুষ বিব্রত করেছে, আমি এটা মেনে নিতেই পারি না। ভুল মানুষের থাকতেই পারে, নান্নু ভাইও ভুল করতেই পাড়ে। আমি মনে করি সুমন-নান্নু ভাই সবাই সৎ থেকে কাজ করেছেন। শুধু উনাদের দোষ দিয়েও লাভ হবে না। আমরা নির্বাচক খুঁজে পাচ্ছিলাম না। বিসিবি কেন উনাদের এতদিন টেনে নিয়েছে? যেটা বাস্তবতা সেটা আমাদের চিন্তা করতে হবে।’

এসময় বাংলাদেশ ক্রিকেটে নান্নু-বাশারদের অবদানকেও অস্বীকার না করতে গণমাধ্যমের প্রতি অনুরোধ করেছেন সুজন। তিনি বলেন, ‘এখানে আপনাদের দায়িত্বটাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। সমালোচনা হবেই, সমালোচনা থাকবেই। শান্ত ভালো খেলবেনা, সমালোচনা হবে। লিপু ভাই ভালো কাজ করবে না সমালোচনা হবে। ভালো কাজের পুরষ্কারের কথাও বলতে হবে। কারণ নান্নু ভাই-সুমনরা যখন ছিল তখনও বাংলাদেশ অনেক সাফল্য পেয়েছে। এটাতে কিন্তু উনাদেরও যে অবদান ছিল সেটা ভুলে গেলে চলবে না আমাদের। তবে একটা পরিবর্তন দরকার ছিল, সেটার জন্য বিসিবির এই সিদ্ধান্তকে আমি সেরা বলে মানি। নান্নু ভাইরা যা করেছে, ভালো করেছে। আমি তাদের কোনো দোষ দিবো না। উল্টো আমি তাদের স্যালুট করি। কারণ ধৈর্য্যের সাথে তারা এই কাজ করেছে। নির্বাচকের দায়িত্ব পালন করা সহজ কাজ নয়, কারণ এখানে থেকে আপনি সবাইকে খুশি করতে পারবেন না।’

আরও পড়ুন

×