ভারতের গত লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ পেতেই কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী ঊর্মিলা মাতণ্ডকর। পরে দলে স্বার্থান্বেষি ও ক্ষুদ্র দলাদলির রাজনীতির অভিযোগ তুলে ক্ষোভও প্রকাশ করেছিলেন। এবার মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসেরই শরিক দল শিবসেনার হাত ধরে ফের রাজনীতির ময়দানে পা রাখতে চলেছেন তিনি। 

আনন্দবাজার জানিয়েছে, রাজ্য বিধান সভায় ঊর্মিলাকে প্রার্থী মনোনীত করতে চলেছে শিবসেনা। দলের অন্যতম মুখপাত্র হিসেবেও তাকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

কংগ্রেসের সঙ্গ ছাড়লেও সুযোগ পেলে ভবিষ্যতে ফের মানুষের সেবায় নিজেকে ব্রতী করে তুলবেন বলে আগেই জানিয়েছিলেন ঊর্মিলা। তবে কংগ্রেসেরই শরিক দল শিবসেনার হাত ধরে রাজনীতিতে দ্বিতীয় ইনিংস খেলার সিদ্ধান্ত কতটা যুক্তিযুক্ত, তা নিয়ে ইতোমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে এ নিয়ে ঊর্মিলা চিন্তিত নন। এ ব্যাপারে উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে কথাও সেরে ফেলেছেন তিনি।

ঊর্মিলা মাতণ্ডকর

শিবসেনার প্রধান মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত বলেন, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে কথা হয়েছে ঊর্মিলার। শিবসেনা মনোনীত সদস্য হতে রাজি হয়েছেন তিনি।

রাজ্য বিধানসভার উচ্চকক্ষের জন্য রাজ্যপালের কোটায় ভগৎ সিংহ কোশিয়ারির কাছে ১২ জনের নাম সুপারিশ করার কথা শিবসেনা নেতৃত্বাধীন ‘মহা বিকাশ আঘাড়ি’ জোটের। এর আগে কংগ্রেসের পক্ষে ঊর্মিলার নাম মনোনয়ন করা হবে বলে জানা গিয়েছিল। কিন্তু দল ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ায় ঊর্মিলাকে নিয়ে কংগ্রেস নেতারা ইতস্তত করছিলেন। তার জেরে শিবসেনাই অভিনেত্রীকে মনোনীত করার সিদ্ধান্ত নেয়।